অন্যান্য সংস্থা

অন্যান্য সংস্থা

 

বাণিজ্য চুক্তি

NAFTA

 

NAFTA: North American Free Trade Agreement.

বাংলায়: উত্তর আমেরিকার মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি

 

Establishment

Signed on: 17 December, 1992.

Entered into effect: 1 January, 1994.

প্রতিষ্ঠাকাল

স্বাক্ষরিত হয়: ১৭ ডিসেম্বর, ১৯৯২।

কার্যকর হয়: ১ জানুয়ারি, ১৯৯৪।

 

Membership: 3 Countries (USA, Canada, Mexico)

সদস্যপদ: ৩টি দেশ। (যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকো।)

 

APTA

 

APTA: Asia Pacific Trade Agreement.

Establishment

Signed on: 1975.

Entered into effect: 1 January, 2006.

প্রতিষ্ঠাকাল

স্বাক্ষরিত হয়: ১৯৭৫.

কার্যকর হয়: ১ জানুয়ারি, ২০০৬।

 

Membership: 7 Countries (Bangladesh, China, South Korea, Laos, India, Sri Lanka, Mongolia)

সদস্যপদ: ৭টি দেশ। (বাংলাদেশ, দক্ষিন কোরিয়া, চীন, মঙ্গোলিয়া, ভারত, শ্রীলঙ্কা ও লাওস)

মঙ্গোলিয়া সর্বশেষ সদস্য। (২০১৩)

 

 

AFTA

 

AFTA: ASEAN Free Trade Area.

ভূমিকা: আসিয়ানভুক্ত দেশসমূহের একটি বাণিজ্য গোষ্ঠী।

 

Establishment

Signed on: 28 January, 1992.

Entered into effect: 1 January, 2003.

 

প্রতিষ্ঠাকাল

স্বাক্ষরিত হয়: ২৮ জানুয়ারি, ১৯৯২

কার্যকর হয়: ১ জানুয়ারি, ২০০৩।

 

Membership: 10 Countries. (Indonesia, Malaysia, Thailand, Singapore, Brunei, Vietnam, Philippines, Laos, Cambodia, Myanmar)

 

সদস্যপদ  : আসিয়ানভুক্ত ১০ টি দেশ। (ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, ব্রুনাই, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন, লাওস, কম্বোডিয়া, মায়ানমার।

 

EFTA

 

EFTA: European Free Trade Association.

পরিচিতি: ইউরোপীয় একটি বাণিজ্যিক গোষ্ঠী।

 

Establishment: 3 May, 1960.

প্রতিষ্ঠাকাল: ৩ মে, ১৯৬০.

Membership: 4 Countries. (Iceland, Liechtenstein, Norway, Switzerland)

সদস্যপদ: ৪টি দেশ। (আইসল্যান্ড, লিচেস্টেন, নরওয়ে ও সুইজারল্যান্ড।)

 

 

COMESA

 

COMESA: Common Market for Eastern and Southern Africa.

 

Establishment

Signed on: 5 November, 1993.

Entered into effect: 8 December, 1994.

 

প্রতিষ্ঠাকাল

স্বাক্ষরিত হয়: ৫ নভেম্বর, ১৯৯৩

কার্যকর হয়: ৮ ডিসেম্বর, ১৯৯৪

 

সদস্যপদ: পূর্ব ও দক্ষিণ আফ্রিকার ২১টি দেশের একটি বাণিজ্যিক ব্লক।

Membership: 21 Countries.

 

সদরদপ্তর: লুসাকা, জাম্বিয়া।

Headquarters: Lusaka, Zambia.

 

BBIN

BBIN এর পূর্ণরূপ হচ্ছে Bangladesh, Bhutan, India, Nepal. এই চারটি দেশের মধ্যে সড়ক যোগাযোগ চুক্তি BBIN ২০১৫ সালে ভুটানের রাজধানী থিম্পুতে। ভুটান ২০১৭ সালে এই চুক্তি ত্যাগ করে।

 

 

আন্তর্জাতিক সেবা সংস্থা

 

Red Cross and Red Crescent- রেডক্রস এবং রেড ক্রিসেন্ট

 

ভূমিকা: রেডক্রস বিশ্বের দুঃস্থ মানবতার সেবায় নিয়োজিত একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা। মুসলিম বিশ্বে রেডক্রসের পরিবর্তিত নাম ‘রেডক্রিসেন্ট’।

 

প্রতিষ্ঠাকাল

Establishment

 

  1. ICRC:  International Committee of the Red Cross.

Date: 9 February, 1863.

১৮৬৩ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯১৭, ১৯৪৪ এবং ১৯৬৩ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করে।

  1. IFRC: International Federation of Red Cross and Red Crescent Societies.

Date: 1919.

১৯১৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৬৩ সালে ICRC এর সাথে যৌথভাবে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পায়।

 

প্রতিষ্ঠাতা: হেনরি ডুরান্ট

Founder: Henry Dunant.

 

Headquarters: Geneva, Switzerland

সদরদপ্তর: জেনেভা, সুইজারল্যান্ড

 

Membership: 190 Countries.

সদস্যদেশ: ১৯০টি।

 

প্রতীক: লাল রঙের ক্রস (রেডক্রস)[খ্রিস্টানদের জন্য রেডক্রস চিহ্ন]

অর্ধাকৃতি চাঁদ (রেডক্রিসেন্ট)[মুসলিমদের জন্য লাল অর্ধাকৃতি চাঁদ]

Symbol : Cross of Red Colour (Red Cross)

Half of Moon (Red Crescent)

 

Rotary International – রোটারি ইন্টারন্যাশনাল

 

প্রতিষ্ঠাকাল: ১৯০৫।

Establishment: 1905

 

প্রতিষ্ঠাতা: পল হ্যারিস

Founder: Paul P. Harris

 

Headquarters: Evanston, Illinois, USA.

সদরদপ্তর: ইলিয়ন, শিকাগো, যুক্তরাষ্ট্র

Membership: 1.22 Million People.

সদস্যদেশ: ১.২২ মিলিয়ন লোক।

 

উদ্দেশ্য: বিশ্বব্যাপী ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিদের সহযোগিতা এবং তাদের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য মানবকল্যাণমুখী সমাজ উন্নয়নমূলক আন্তর্জাতিক সংস্থা।

 

Oxfam International- অক্সফাম ইন্টারন্যাশনাল

 

পরিচিতি: যুক্তরাজ্য ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী দাতব্য সংস্থা

 

প্রতিষ্ঠাকাল: ১৯৪২

Establishment: 1942

 

সদরদপ্তর: লন্ডন, যুক্তরাজ্য

Headquarters: London, UK.

 

Lions Club International -লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল

 

পরিচিতি: বিশ্বব্যাপী ধনাঢ্য ব্যক্তিদের দ্বারা গঠিত সংস্থা।

 

প্রতিষ্ঠাকাল: ৭ জুন, ১৯১৭।

Establishment: 7 June, 1917

 

প্রতিষ্ঠাতা: মেলভিন, জোন্স

Founder: Melvin Jones

 

Headquarters: Illinois, USA.

সদরদপ্তর: ইলিয়ন, শিকাগো, যুক্তরাষ্ট্র

 

 

 

Scout Movement – স্কাউট আন্দোলন

 

প্রতিষ্ঠাকাল : ১৯০৭

Establishment: 1907

 

প্রতিষ্ঠাতা: রবার্ট ব্যাডেন পাওয়েল

Founder: Robert Baden Powell

বিভাগ

 

World Organization of the Scout Movement (WOSM): শুধু মাত্র ছেলেদের জন্য প্রতিষ্ঠান। বয়েজ স্কাউটদের সর্ববৃহৎ সম্মেলনকে বলা হয় জাম্বুরি।

World Organization of Girl Guides and Girl Scout (WAGGGS): শুধু মাত্র মেয়েদের জন্য প্রতিষ্ঠান।

 

সদরদপ্তর: জেনেভা, সুইজারল্যান্ড

Headquarters: Geneva, Switzerland

 

** আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯৭২ সালের ৯ এপ্রিল  বাংলাদেশে স্কাউট আন্দোলন প্রতিষ্ঠিত হয়।

 

Orbis International- অরবিস ইন্টারন্যাশনাল

 

প্রতিষ্ঠাকাল : ১৯৮২

Establishment: 1982

 

প্রতিষ্ঠাতা: ডেভিড প্যাটোন

Founder: David Paton

 

Headquarters: Newyork, USA.

সদরদপ্তর: নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র

 

উদ্দেশ্য: প্রতিরোধ করা সম্ভব এমন অন্ধত্ব নির্মূল করা।

অরবিস: উড়ন্ত চক্ষু হসপিটাল।

 

Greenpeace

 

নেদারল্যান্ডভিত্তিক পারমানবিক বিস্ফোরণ বিরোধী একটি পরিবেশবাদী সংস্থা।

 

প্রতিষ্ঠাকাল : ১৯১৭

Establishment: 1971

 

World watch Institute- ওয়ার্ল্ড ওয়াচ

 

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি পরিবেশবাদী সংস্থা।

 

Organization of American (OAS)

 

OAS formed to promote economic, military and cultural cooperation among its members, which include almost all of the independent states of Western Hemisphere.

 

Headquarters: Washington D.C, USA.

সদরদপ্তর: ওয়াশিংটন ডিসি, যুক্তরাষ্ট্র

 

SCO

SCO: Shanghai Co-operation Organization.

সদরদপ্তর: সাংহাই, চীন

Headquarters: Shanghai, China.

সদস্যপদ: ৮টি দেশ। (চীন, রাশিয়া, পাকিস্থান, ভারত, কাজাকস্থান, কিরঘিস্থান, তাজিকিস্থান, উজবেকস্থান।)

Membership: 8 Countries. (China, India, Kazakhstan, Kyrgyzstan, Pakistan, Russia, Tajikistan, Uzbekistan)

Observer: 4 Countries (Afghanistan, Belarus, Iran, Mongolia)

 

COMECON

 

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর পূর্ব-পশ্চিম দ্বন্দের ফলে সৃষ্ট পূর্বের অর্থনৈতিক জোটের নাম কমেকন।

 

 

 

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা

 

Amnesty International – আমনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

প্রতিষ্ঠাকাল : ১৯৬১

Establishment: 1961

প্রতিষ্ঠাতা: পিটার বেননসন

Founder: Peter Benenson

সদরদপ্তর: লন্ডন, যুক্তরাজ্য

Headquarters: London, UK.

উদ্দেশ্য: মানবাধিকার সমুন্নত রাখা

** সংস্থাটি ১৯৭৭ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করে।

 

Transparency International – TI

 

প্রতিষ্ঠাকাল : ১৯৯৩

Establishment: 1993

প্রতিষ্ঠাতা: পিটার ইজেন

Founder: Peter Eigen

সদরদপ্তর: বার্লিন, জার্মানি।

Headquarters: Berlin, Germany

উদ্দেশ্য: দুর্নীতি বিরোধী(Anti Corruption)

 

  • TIB: Transparency International Bangladesh
  • CPI: Corruption Perceptions Index.

 

Human Rights Watch – হিউম্যান রাইটস ওয়াচ

পরিচিতি: মানবাধিকার সর্ম্পকিত আন্তর্জাতিক এন.জি.ও

প্রতিষ্ঠাকাল : ১৯৭৮ (হিউম্যান রাইট ওয়াচ নামকরণ করা হয় ১৯৮৬ সালে।

Establishment: 1978

Headquarters: New York, USA.

সদরদপ্তর: নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র

 

 

 

ফ্রিডম হাউজ – Freedom House

 

যুক্তরাষ্ট্রের বুদ্ধিজীবীদের একটি সংগঠন।

প্রতিষ্ঠাকাল : ৩১ অক্টোবর, ১৯৪১

Establishment: 1941

 

Headquarters: Washington D.C, USA.

সদরদপ্তর: ওয়াশিংটন ডিসি, যুক্তরাষ্ট্র

 

উদ্দেশ্য: গণতন্ত্র, রাজনৈতিক স্বাধীনতা এবং মানবাধিকার সমুন্নত রাখা।

 

বিবিধ আন্তর্জাতিক সংস্থা

 

Wikileaks – উইকিলিকস

 

ভূমিকা: গোপন তথ্য প্রকাশকারী সংবাদভিত্তিক একটি আন্তর্জাতিক সংগঠন।

প্রতিষ্ঠাতা: জুলিয়ান এসাঞ্জ

প্রতিষ্ঠাকাল: ৪ অক্টোবর, ২০০৬

 

 

ISO

ISO: International Organization for Standardization

ভূমিকা: আন্তর্জাতিক মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা

প্রতিষ্ঠাকাল: ২৩ ফেব্রুয়ারি, ১৯৪৭

Establishment: 23 February, 1947

সদরদপ্তর: জেনেভা, সুইজারল্যান্ড

Headquarters: Geneva, Switzerland

 

WEF

WEF: World Economic Forum  (বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম)

পূর্বনাম: ইউরোপিয়ান ম্যানেজমেন্ট ফোরাম

প্রতিষ্ঠাকাল: ১৯৭১

Establishment: 1971

সদরদপ্তর: ডাভোস, সুইজারল্যান্ড

 

ISBN

 

ISBN: International Book Number (আন্তর্জাতিক মান পুস্তক সংখ্যা)

 

পরিচিতি: সকল বইয়ের বারকোড চিহ্নিতকরণেরর জন্য ব্যবহৃত একটি অনন্য সংখ্যায়ন পদ্ধতি যা বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। ১৯৬৬ সালে যুক্তরাজ্যে এই সংখ্যাংন পদ্ধতির প্রবর্তন করা হয়।

 

ITLOS

ITLOS: International Tribunal for the Law of the Sea.

পরিচিতি: সমুদ্রসীমা আইন সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক আদালত বা ট্রাইব্যুনাল

প্রতিষ্ঠাকাল: ১৯৯৪

কার্যক্রম শুরু: ১৯৯৬

প্রতিষ্ঠার ভিত্তি: জাতিসংঘের ১৯৮২ সালের Unoted Nations Convention on Law of the Sea (UNCLOS)

সদরদপ্তর: হামবুর্গ, জার্মানি

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সমুদ্রসীমার মামলার রায়: ১৪ মার্চ, ২০১২। বাংলাদেশ ২০-১ ভোটে জয়লাভ করে।