তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়

তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়

 

তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায় ২৩ আগস্ট ১৮৯৮ সালে পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার লাভপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।তিনি মূলত কথাসাহিত্যিক। ১৯২১ সালে কলকাতায় সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে আই.এ পড়াকালে তিনি অসহযোগ আন্দোলনে যোগ দেন। তি ি১৯৭১ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর কলকাতায় মারা যান।

 

উপন্যাস

তাঁর রচিত উপন্যাসসমূহ হল-চৈতালী ঘূর্ণি, হাসুলীবাঁকের উপকথা, কবি, ধাত্রীদেবতা, পঞ্চগ্রাম, গণদেবতা, অরণ্যবহ্নি, অভিযান, নাগিণী কন্যার কাহিনী, কালিন্দী, জলসাগর, আরগ্য নিকেতন, রাধা, পঞ্চপুণ্ডুলী।

 

চৈতালী ঘূর্ণি- তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম উপন্যাস।

হাসুলীবাঁকের উপকথা- বীরভুমের কাহার সম্প্রদায়ের জীবনী।

কবি উপন্যাস- কবি নামে হুমায়ন আহমেদেরও একটি উপন্যাস আছে।

ত্রয়ী উপন্যাস- ধাত্রীদেবতা, গণদেবতা ও পঞ্চগ্রাম।

অরণ্যবহ্নি – সাঁওতাল বিদ্রোহ নিয়ে এই উপন্যাস।

 

গল্পগ্রন্থ

 

জলসার- এই গল্পগ্রন্থে মোট এগারোটি গল্প আছে। তাঁর আরেকটি গল্পগ্রন্থ রসকলি।

অগ্রদানী – এটি তাঁর শ্রেষ্ঠ গল্প। গল্পটি ‘প্রবাসী’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয় এবং রসকলি গল্পগ্রন্থের অর্ন্তভুক্ত।

তিনি পদ্মশ্রী ও পদ্মভূষণ উপাধি লাভ করেছিলেন।