বাজেট ২০১৮

বাজেট ২০১৮

¤ তম: ৪৭ তম বাজেট (একটি অন্তবর্তীকালীন বাজেটসহ)

¤ বাজেট ঘোষণা/উপস্থাপন করা হয়: ০৭ জুন, ২০১৮ 

¤ বাজেট পাশ : ২৮ জুন, ২০১৮।

¤ বাজেটের আকার : ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা।(জিডিপির ১৮.৭১%)

¤ মোট জিডিপি-২৫,৩৭,৮৪৯ কোটি টাকা

¤সামগ্রিক আয় (রাজস্ব ও অনুদানসহ) ৩,৪৩,৩৩১ কোটি টাকা।(জিডিপির ১৩.৫৩%, বাজেটের ৭৩.৯০%)

¤বাজেটে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে-৩,৩৯,২৮০ কোটি টাকা।(জিডিপির ১৩.৩৭%, বাজেটের ৭৩.০৩%)
¤ বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (ADP) বরাদ্ধ : ১লাখ ৭৩ হাজার কোটি টাকা।

¤সামগ্রিক ঘাটতি (অনুদান ছাড়া) – ১,২৫,২৯৩ কোটি টাকা।(জিডিপির ৪.৯৪% ও বাজেটের ২৬.৯৭%)

¤সামগ্রিক ঘাটতি (অনুদানসহ) – ১,২১,২৪২ কোটি টাকা।(জিডিপির ২.৮১% ও বাজেটের ১৫.৩৪%)

¤বৈদেশিক অনুদান-৪,০৫১ কোটি টাকা।

¤ জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ধরা হয়েছে : ৭.৮০%

¤ মূল্যস্ফীতির হার ধরা হয়েছে : ৫.৬%

¤ সবচেয়ে বেশি বাজেট বরাদ্দ জনপ্রশাসন : ৮৩, ৫০৯ কোটি

¤ দ্বিতীয় সবচেয়ে বেশি বাজেট বরাদ্দ শিক্ষা ও প্রযুক্তি খাতে = ৬৭,৯৪৪ কোটি

¤ করমুক্ত আয়সীমা:
*সাধারণ সীমা (ব্যক্তি শ্রেণি) : ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা
*নারী ও ৬৫ ঊর্ধ্ব করদাতা : ৩ লক্ষ টাকা
*প্রতিবন্ধী ব্যক্তি : ৪ লক্ষ টাকা
*ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগ এর কর অব্যাহতির সীমা : বার্ষিক ৩৬ লাখ টাকা

নোট :
*সংবিধানে বাজেটকে বলা হয়-Annual financial statement
[বাংলায় বার্ষিক আর্থিক বিবৃতি -অনুচ্ছেদ : 87]

*আধুনিক বাজেটের প্রবর্তক স্যার জেমস উইলসন।

*১ম বাজেট বাংলাদেশে দেন-তাজ উদ্দিন আহমেদ(৩০ জুন,১৯৭২)

* উপমহাদেশের প্রথম বাজেট ঘোষনা কার হয় ১৮৬১ সালে (লড ক্যানিং)

* বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি বাজেট ঘোষনা করেন ১২ বার যথাক্রমে সাইফুর রহমান ও আবুল মাল আবদুল মুহিত।

* বাংলাদেশে বাজেটের ধরন ঘাটতি বাজেট।

* PPP এর পূর্ণরূপ Public – Private Partnership

*ভ্যাট চালু হয়-১৯৯১ সালের জুলাই মাসে

*NBR এর রাজস্ব উৎস হলো আয়কর এবং ভ্যাট।

*বাজেট প্রধানত দুইভাগে ভাগ করা যায়
ক)সুষম বাজেট
খ)অসম বাজেট

*অসম বাজেট দুই প্রকার
ক) Surplus Budget
খ)Deficit Budget

 

এটি হচ্ছে-

a) দেশের ৪৭তম
b) আওয়ামী লীগ সরকারের ১৯ তম
c) অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ১২ তম আর টানা দশম বাজেট।

২| ‌ঘোষণা ক‌রে: অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।