বুদ্ধদেব বসু

বুদ্ধদেব বসু

 

বুদ্ধদেব বসু ১৯০৮ সালের ৩০ নভেম্বর কুমিল্লায় জন্মগ্রহণ করেন। রবীন্দ্রনাথের পর বুদ্ধদেব বসুকে সব্যসাচী লেখক বলা হয়। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, কথাসাহিত্যিক, নাট্যকার, প্রাবন্ধিক, অনুবাদক ও সম্পাদক।তিনি বাংলাদেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের ছাত্র ছিলেন।ছাত্র থাকা অবস্থায় তিনি ‘বাসন্তিকা’ পত্রিকার সাথে যুক্ত ছিলেন।এছাড়াও তিনি পরবর্তীতে ‘প্রগতি ও ‘কবিতা’ পত্রিকার সম্পাদনা করেন।তিনি ১৯৭৮ সালের ১৮ই মার্চ মারা যান।

 

সাহিত্য

কাব্যগ্রন্থ: বন্দীর বন্দনা, কঙ্কাবতী (কঙ্কাবতী নামে উপন্যাসটি অন্নদাশঙ্কর রায়ের), যে আধাঁর আলোর অধিক, স্বাগত বিদায়, মর্মবানী, দময়ন্তী, মরচেপড়া পেরেকের গান, একদিন চির দিন।

কাব্যনাট্য: তপস্বী ও তরঙ্গিণী, কলকাতার ইলেকট্রা ও সত্যসন্ধ।

উপন্যাস: নির্জর স্বাক্ষর, জঙ্গম, তিথিডোর, সানন্দা, সাড়া, লালমেঘ, পরিক্রমা, কালো হাওয়া, নীলাঞ্জনের খাতা, একদা তুমি প্রিয়ে, রাত ভরে বৃষ্টি।

গল্প গ্রন্থ: অভিনয়, অভিনয় নয়, রেখাচিত্র, হাওয়া বদল।

প্রবন্ধ: হঠাৎ আলোর ঝলকানি, কালের পুতুল।

অনবাদ কাব্য: কালিদাসের মেঘদূত, বোদলেয়ার, তার কবিতা, হেন্ডালিনের কবিতা, রাইনের মারিয়া রিলকের কবিতা।