শিল্প সম্পদ

                                             সার শিল্প

সার কারখানার নাম অবস্থান উৎপাদিত সার তথ্য
ন্যাচারল গ্যাস ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরি লি. ফেঞ্চুগঞ্জ ইউরিয়া বাংলাদেশের প্রথম সার কারখানা। ১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।
ইউরিয়া  ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরি লি. ঘোড়াশাল, নরসিংদী ইউরিয়া
ট্রিপল সুপার ফসফেট কমপ্লেক্স লি: পতেঙ্গা, চট্টগ্রাম TSP
কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কিা.লি.সংক্ষেপে (কাফকো) আনোয়ারা, চট্টগ্রাম ইউরিয়া বেসরকারী খাতে বাংলাদেশের একক বৃহত্তম  সারকারখানা। বাংলাদেশ ও জাপানের যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত।
জিয়া সার কারখানা কো.

লি

আশুগঞ্জ, ব্রাহ্মনবাড়িয়া ইউরিয়া
চট্টগ্রাম ইউরিয়া  ফার্টিলাইজার লি. রাঙ্গুনিয়া, চট্টগ্রাম ইউরিয়া
যমুনা তারাকান্দি, জামালপুর বাংলাদেশের একমাত্র দানাদার ইউরিয়া সার প্রস্তুতকারী কারখানা বাংলােদেশের বৃহত্তম সার কারখানা।

বার্ষিক উৎপাদনক্ষমতা ৫ লক্ষ ৬১ হাজার টন মে.টন।

পাট শিল্প

পাট শিল্প বাংলাদেশের প্রধান। বাংলাদেশের প্রধান তিনটি পাট শিল্প হলো- নারায়নগঞ্জ, চট্টগ্রাম, খুলনা। ১৯৫১ সালে নারায়নগঞ্জের আদমজীনগরে পাট প্রতিষ্ঠিত হয় বাংলাদেশের প্রথম পাটকল ‘আদমজী জুট মিল’। এটি ছিল বিশ্বের বৃহত্তম পাটকল। ২০০২ সালে এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

চিনি শিল্প

প্রথম চিনিকল বাংলাদেশের প্রথম চিনিকল নর্থবেঙ্গল চিনিকল, গোপালপুর, নাটোর।
বৃহত্তম চিনিকল বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় চিনিকল কেরু এন্ড কোং, দর্শনা, চুয়াডাঙ্গা।

 

সিমেন্ট শিল্প

প্রথম সিমেন্ট কারখানা ১৯৪০ সালে সুনামগঞ্জের ছাতকে স্থাপিত সিমেন্ট কো. লি.

বাংলাদেশের প্রথম সিমেন্ট কারখানা

বৃহত্তম সিমেন্ট কারখানা বর্তমানে বাংলাদেশ তথা দক্ষিন এশিয়ার বৃহত্তম  সিমেন্ট কারখানা লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট ফ্যাক্টরি, ছাতক, সুনামগঞ্জ।

 

কাগজ শিল্প

 

প্রথম কাগজকল বাংলাদেশের কাগজকলগুলোর মধ্যে প্রথম ও বৃহত্তম -কর্ণফুলী কাগজকল। ১৯৫৩ সালে এটি স্থাপিত হয়।
পূর্বের বৃহত্তম কাগজকল বাংলাদেশের বৃহত্তম কাগজের কল ছিল খুলনার নিউজপ্রিন্ট মিল। এই মিলে সুন্দরবণের গেওয়া কাঠ কাচাঁমাল হিসেবে ব্যবহৃত হত। ২০০২ সালে এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।
সর্বপ্রথম বাংলাদেশে সর্বপ্রথম সবুজপাট ব্যবহার করে কাগজের মন্ড তৈরির প্রযুক্তি উদ্ভাবিত হয়েছে।

বাংলাদেশের উল্লেখ্যযোগ্য কাগজকল

 

নাম অবস্থান কাচাঁমাল
কর্ণফুলী কাগজকল চন্দ্রঘোনা, চট্টগ্রাম বাশঁ ও নরম কাঠ
উত্তরবঙ্গ কাগজকল পাকশী,পাবনা চিনিকলগুলো থেকে প্রাপ্ত আখের চোবড়া
সিলেট মন্ড ও কাগজকল ছাতক, সিলেট নালাগড়া ও ঘাস
বসুন্ধরা কাগজকল নারায়নগঞ্জ আমদানিকৃত মন্ড

বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য হার্ডবোর্ড মিল

নাম অবস্থান কাচাঁমাল
খুলনা হার্ডবোর্ড মিল খুলনা সুন্দরবনের গেওয়া কাঠ

চামড়া শিল্প

২০০ একর জমি নিয়ে সাভারের হরিণাধারায় স্থাপিত হয়েছে চামড়া শিল্প নগরী। ঢাকার হাজারীবাগ থেকে ৬৬ বছর পর ট্যানারিগুলোকে চামড়া শিল্প নগরীতে স্থানান্তর করা হয়েছে।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাছিনা চামড়া ও চামড়াজাত পণ্যকে ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি , Product of the year ঘোষনা করেন। 

জাহাজ শিল্প

খুলনা শিপইয়ার্ড: 

এটি ১৯৫৭ সালে জার্মান সহায়তায় প্রতিষ্ঠিত হয়।দীর্ঘদিন লোকসানের মুখে পতিত হয়ে ১৯৯ সালে এটি শিল্প মন্ত্রনালয় থেকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়।ধীরে ধীরে এই জাহাজ নির্মান ও মেরামতকারি প্রতিষ্ঠানটি লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিনত হয়।২০১৪ সালে খুলনা শিপইয়ার্ড পাচঁটি ছোট যুদ্ধ জাহাজ নির্মাণের কাজ হাতে নেয় এবং তা সফলভাবে তা সম্পন্ন করে।দেশে তৈরি প্রথম যুদ্ধ জাহাজটির নাম ’বিএনএন পদ্মা’। এছাড়াও দুটি বড় যুদ্ধ জাহাজ বা লার্জ পেট্রোল ক্রাফট (এলপিসি) নির্মাণ করেছে। এর মধ্যে প্রথম ‘এলপিসি’টির নাম ‘বিএনএস দুর্গম’ এবং দ্বিতীয় তথা বৃহত্তম এবং সর্বশেষ ও বৃহত্তম ‘এলপিসি’টির নাম ‘বিএনএস নিশান’।  ‍খুলনা শিপইয়ার্ডদেশের বৃহত্তম জাহাজ নির্মাণ ও মেরামত কারখানা।

জাহাজ নির্মাণ কারখানা অবস্থান Key Points
চট্টগ্রাম ডকইয়ার্ড চট্টগ্রাম
নারায়গঞ্জ ডকইয়ার্ড নারায়গঞ্জ
ঢাকা ডকইয়ার্ড এন্ড মেরিন ওয়ার্কস প্রা: লি: ঢাকা
আনন্দ শিপইয়ার্ড লি. নারায়নগঞ্জ ২০০৮ সালে বাংলাদেশ প্রথম জাহাজ রপ্তানি করে ডেনমার্কে।বাংলাদেশ থেকে েরপ্তানিকৃত প্রথম জাহাজটির নাম ‘স্টেলা মেরিস’। নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ছিল আনন্দ শিপইয়ার্ড।
কর্ণফুলী ডকইয়ার্ড এন্ড মেরিন ওয়ার্কস প্রা: লি: চট্টগ্রাম
এফ এন্ড এফ শিপিং রিসাইক্লিং চট্টগ্রাম

 

 

নৌবাহিনীতে সাবমেরিন ১৪ নভেম্বর ২০১৬ সালে বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিকভাবে ‘নবযাত্রা’ ও ‘জয়যাত্রা’ নামে দুটি সাবমেরিন হস্তান্তর করে চীন। এর মাধ্যমে ত্রিমাত্রিক শক্তি হিসেবে যাত্রা শুরু করে বাংলাদেশ।

অন্যান্য : 

নাম  অবস্থান
বাংলাদেশের একমাত্র মেশিন টুলস কারখানা অবস্থিত গাজীপুরে
বাংলাদেশের বৃহত্তম লৌহ ও ইস্পাত কারখানা চট্টগ্রাম স্টীল মিলস
বাংলাদেশের মোটর সাইকেল সংযোগ কারখানা এটলাস বাংলাদেশ লি.(টঙ্গী, গাজিপুর)
বাংলাদেশের একমাত্র রেয়ন মিল কর্ণফুলী রেয়ন মিল (চন্দ্রঘোনা, চট্টগ্রাম)
বাংলাদেশের টেলিফোন শিল্প সংস্থা টঙ্গী ও খুলনা
বাংলাদেশের প্রথম ট্যানারি স্থাপন করা হয় নারায়নগঞ্জে
বাংলাদেশের প্রথম কয়লা শোধনাগার বিরামপুর হার্ড কোক লি. (দিনাজপুর)
তৈরি পোশাক শিল্পে কোটা ব্যবস্থা ছিল ২০০৪ সাল পর্যন্ত
GSP – পূর্ণ রূপ Generalized System of preferences
GSP সুবিধা এই সুবিধার আওতায় বাংলাদেশ ইউরোপীয় ইউনিয়নের পোষাক রপ্তানিতে ১২.৫% হারে শুল্ক সুবিধা পায়।
বাংলাদেশের একমাত্র অস্ত্র কারখানা গাজীপুরে

 

 শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনে ৪ টি সংস্থা, ৬ টি দপ্তর/অধিদপ্তর এবং ১ টি বোর্ড করছে।

সংস্থা ঃ

১) Bangladesh Chemical Industries Corporation (BCIC )

২) Bangladesh Sugar and Food Industries Corporation (BSFIC)

৩) Bangladesh Steel & Engineering Corporation (BSEC)

৪) Bangladesh Small and Cottage Industry Corporation (BSCIC)

দপ্তর: 

১) Bangladesh Standards and Testing Institution (BSTI)

২) Bangladesh Institute of Management (BIM)

৩)  Bangladesh Industrial and Technical Assistance Center (BITAC)

৪) National Productivity Organization (NPO).

৫) পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর

৬) প্রধান বয়লার পরিদর্শকের কার্যালয়

বোর্ড:

বাংলাদেশ এ্যাক্রিডিটেশন বোর্ড